টুইটারে ওয়ার্ন-ভন ঝড়!

অনলাইন ডেস্ক:

ঘরের মাঠে স্পিনিং উইকেট বানিয়ে অস্ট্রেলিয়াকে বধ করার পরিকল্পনাই করেছিল ভারত। কিন্তু নিজেদের পাতা সেই ফাঁদেই ধরা পড়লো স্বাগতিকরাই। অজিদের স্পিন বিষেই নীল হল স্বাগতিকরা! অস্ট্রেলিয়ার বাঁ-হাতি স্পিনার স্টিভ ও’কিফির দুই ইনিংসে ১২ উইকেট নিয়ে একাই ধ্বস নামান ভারতীয় ইনিংসে।

অথচ তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটি মাঠে গড়ানোর আগে এই ও’কিফিকে একাদশে নেওয়ায় চটে গিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি লেগ স্পিনার শেন ওয়ার্ন।বলেছিলেন, ‘ওর দ্বারা স্পিন হবে না।’ কিন্তু ম্যাচে ৭০ রানে ১২ উইকেট তুলে নিয়ে ভারতের মাটিতে যেকোনো বিদেশি স্পিনারের রেকর্ড বোলিং গড়ে যেন ওয়ার্নের মুখে ঝামাই ঘষে দিলেন ও’কিফি।

প্রথম ইনিংসে ৩৫ রানে ছয় উইকেট নেওয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসেও ৩৫ রানে ছয় উইকেট ঝুলিতে পুরেছেন ৩২ বছর বয়সী ও’কিফি। ম্যাচ শেষে অস্ট্রেলিয়ার গণমাধ্যম এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওয়ার্নকে এখন কাঠগড়ায় তোলা হচ্ছে! এই সময় খোঁচা মারতে ভুলেননি মাইকেল ভনও। টুইটারে ওয়ার্নকে খোঁচা দিয়ে টুইট করেন সাবেক এই ইংলিশ অধিনায়ক।

টুইটারে ওয়ার্নকে চাঁচাছোলা ভাষায় বিদ্রুপ করে ভন লিখেছেন, ‘প্রিয় শেন, তোমাকে অস্ট্রেলিয়ার নির্বাচক করে দিলে খুব ভাল হত। তা হলে আমরা পরের অ্যাশেজটাও অনায়াসে জিততাম!’

যদিও মাইকেল ভনের সঙ্গে ঝগড়াটা অবশ্য ওয়ার্নই শুরু করেন। প্রথমবার টুইটে ওয়ার্ন লেখেন, ‘মাইকেল, তোমাদের টিম এখানে কত খারাপ খেলেছে, অস্ট্রেলিয়ার দাপট দেখে তা বুঝেছ নিশ্চয়ই?’ এই টুইটের জবাবে ভন লিখেছিলেন, ‘অস্ট্রেলিয়া তোমার পরামর্শ মেনে ও’কিফকে না খেলালেই ভাল হত দেখছি।’ এর পরই তার টুইট, ‘প্লিজ ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া, শেন ওয়ার্নকে নির্বাচক করুন। আমাদের পরের অ্যাশেজটা জেতার একমাত্র রাস্তা এটাই।’

Check Also

বিদেশে নয় দেশের মাটিতেই বিয়ের পরিকল্পনা রকুল-জ্যাকির

সংবাদবিডি ডেস্ক ঃ রকুল প্রীত সিং ও জ্যাকি ভাগনানির বিয়ে ২১ ফেব্রুয়ারি। বিয়ের প্রস্তুতি এখন …