সার্ক’এ সাত বছরের ফি বকেয়া পাকিস্তানের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বকেয়ার পরিমাণ ৭৮ লাখ ৫০ হাজার ডলার। সব দেশ বকেয়া পরিশোধ করলেও পাকিস্তান করেনি। সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি খাতে প্রদেয় এই টাকা অবিলম্বে মেটাতে পাকিস্তানকে তাগাদা দিয়েছে অন্য সব সদস্য দেশ। ফি না মেটালে প্রকল্পটি থেকে বহিষ্কারের মুখে পড়তে হতে পারে ইসলামাবাদকে, এমন ইঙ্গিতও দিয়ে দেয়া হয়েছে সার্কের পক্ষ থেকে।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর পড়ুয়াদের সামনে উন্নত মানের উচ্চশিক্ষার সুযোগ আরও বাড়াতে সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি প্রকল্প হাতে নিয়েছে সার্ক দেশগুলো। ২০১০ সালে দিল্লীতে অস্থায়ী ক্যাম্পাস চালুও হয়ে গিয়েছে। কিন্তু পাকিস্তান এই প্রকল্পের অংশীদার হয়েও তাদের আর্থিক দায়বদ্ধতা পালন করেনি।

সার্ক সূত্রের খবর, বকেয়া ফি মিটিয়ে দেয়ার জন্য অনেক বারই ইসলামাবাদকে তাগাদা দেয়া হয়েছে। কিন্তু পাকিস্তান টালবাহানা চালিয়ে যাচ্ছে।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতেই কাঠমান্ডুতে বৈঠক হয়েছে সার্কের প্রোগ্রামিং কমিটির সেখানেও সতর্কবার্তা উচ্চারিত হয়েছে পাকিস্তানের জন্য।

২০১৬’র ২৮ নভেম্বর ঢাকায় সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটির গভর্নিং বডির নবম বৈঠকেও পাকিস্তানের বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তারপরে ২০১৭’র ফেব্রুয়ারির শুরুর দিকে কাঠমান্ডুতে সার্ক প্রোগ্রামিং কমিটির ৫৩তম বৈঠকেও পাকিস্তানের প্রতিশ্রুতি ভঙ্গের বিষয়টি নিয়ে কথা হয়েছে এবং পাকিস্তানকে সতর্কবার্তা দেয়া হয়েছে।

ভারত ও সার্কের অন্য সদস্যরা পাকিস্তানকে জানিয়ে দিয়েছে, কয়েক মাসের মধ্যে বকেয়া না মেটালে সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি প্রকল্প থেকে পাকিস্তানকে বাদ দেয়ার কথাই ভাবতে হবে।

Check Also

বিদেশে নয় দেশের মাটিতেই বিয়ের পরিকল্পনা রকুল-জ্যাকির

সংবাদবিডি ডেস্ক ঃ রকুল প্রীত সিং ও জ্যাকি ভাগনানির বিয়ে ২১ ফেব্রুয়ারি। বিয়ের প্রস্তুতি এখন …