আ.লীগের ছত্রছায়ায় কোনো ‘দোকান’ খোলা যাবে না, ওদের পুলিশে দিন: ওবায়দুল কাদের

সিলেট প্রতিনিধি:বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ’র সিলেট বিভাগীয় প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগ’র সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন- ‘আওয়ামী লীগের ছত্রছাত্রায় কোনো দোকান খোলা যাবে না’।

বুধবার সিলেট আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে বিভাগীয় তৃণমূল প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, “বিভিন্ন মহল দেশে ব্যাঙের ছাতার মতো লীগ নাম ব্যবহার করে দোকান খুলে বসে আছে, এই আওয়ামী ওলামালীগ, প্রচার লীগ, আওয়ামী তরুণলীগ, আওয়ামী প্রবীণলীগ, আওয়ামী প্রজন্মলীগ, আওয়ামী কর্মজীবিলীগ, আওয়ামী ডিজিটাললীগ, আওয়ামীলীগ হাইব্রিডলীগ এই সব এল কোথা থেকে! এই সব আওয়ামীলীগের নামে আলাদা আলাদা দোকান খুলে বসে আছে। এইসব নাম ব্যবহার বন্ধ করতে হবে, এই সব চলতে দেওয়া যাবে না। এসব দোকানদারকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দিতে হবে”।

মন্ত্রী বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচনের
আগে মাত্র দেড় বছর বাকি আছে। নেতাকর্মীদের কথা কম বলে বেশি বেশি করে কাজ করতে হবে। আওয়ামী লীগকে হাইব্রিড নেতাদের কাছ থেকে বাঁচিয়ে রাখতে হবে। তিনি সিলেটসহ সারাদেশে আওয়ামী লীগে কোন পকেট কমিটি চলবে না। প্রতিটি স্থানেই প্রকাশ্যে সম্মেলনের মাধ্যমে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় কমিটি দেওয়া হবে। সকল ভেদাভেদ আর মতপার্থক্য ভুলে দলের স্বার্থে সর্বস্তরের নেতাকর্মীকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ এমপির সভাপতিত্বে ও সিলেটের দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেনের পরিচালনায় সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন অর্থমন্ত্রী ও সিলেট-১ আসনের সংসদ সদস্য আবুল মাল আব্দুল মুহিত, অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ’র সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ দেবনাথ এমপি, কেন্দ্রীয় সদস্য ও সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সাংসদ শফুকুর রহমান চৌধুরী।
এসময় অন্যান্য সংসদ সদস্য ও দলের অন্যান্য কেন্দ্রীয় নেতাদের পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয়।

এছাড়া বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন তার বক্তৃতায় বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেটের ১৯ টি সংসদীয় আসনই শেখ হাসিনাকে উপহার দিন।
তিনি তার বক্তৃতায় আরো বলেন- তৃণমুলের নেতাকর্মী ভাল থাকলে দল ভাল থাকে, দল ভাল থাকলে দেশ ভাল থাকে। শিক্ষার্থীদের প্রতি তিনি বলেন- আপনারা ভাল করে লেখাপড়া করুন। অভিবাবকরা সন্তানদের তাদের প্রতি খেয়াল রাখুন। খোঁজখবর নিন।

প্রসঙ্গত, দীর্ঘ ১৫ বছর পর এই বিভাগীয় সম্মেলন অনুষ্টিত হল। সিলেটসহ বিভাগের অন্য তিন জেলার নেতাকর্মীরা সমাবেশ স্থলে উপস্থিত ছিলেন।

 

Check Also

বিদেশে নয় দেশের মাটিতেই বিয়ের পরিকল্পনা রকুল-জ্যাকির

সংবাদবিডি ডেস্ক ঃ রকুল প্রীত সিং ও জ্যাকি ভাগনানির বিয়ে ২১ ফেব্রুয়ারি। বিয়ের প্রস্তুতি এখন …