‘টাকা খেয়ে পাট শিল্প ধ্বংস করেছে বিএনপি’

ঢাকা: বিশ্বব্যাংকের টাকা খেয়ে পাট শিল্প ধ্বংস করেছে বিএনপি। এক সময় পাট রফতানি করে অনেক বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করা হতো। এখনও পাট থেকে অনেক পণ্য তৈরি করা হয়। তাই পাট শিল্পকে আর অবহেলা করা যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর ‍কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে পাট দিবস-২০১৭ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণী ও পাট মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠনে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি সরকার ক্ষমতায় এসে দেশের পাটকলগুলো একে একে ধ্বংস করে দেয়। কিন্তু আমরা ক্ষমতায় এসে দেশের সম্পদের বিকাশ ঘটাতে পাট নিয়ে কাজ শুরু করি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আজ প্রায় ৩৫ রকম পণ্য পাট থেকে উৎপাদন হচ্ছে। পাটের শাড়ি না হলে এক সময় মেয়েদের বিয়ে হতো না। পাটের মক কিছু আমাদের কাজে লাগে। এখন আসবাবপত্রও পাট থেকে তৈরি হচ্ছে। তাই পাটকে অবহেলা করা যায়।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘১৯৯১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় এসে পাটকল বন্ধ করতে বিশ্ব ব্যাংকের সঙ্গে একটি চুক্তি করে। ১৯৯৩ সাল থেকে গোল্ডেন হ্যান্ড শেকের মাধ্যমে শ্রমিকদের বিদায় দেওয়ার চুক্তিও করে। একই সময় বিশ্বব্যাংক ভারতকে পাটকল চালুর জন্য টাকা দেওয়ার চুক্তি করে। বিএনপির সময় বিশ্বব্যাংকের কথা ফেরেশতার মতো ছিলো।’

ড. মোহাম্মদ ইউনূসকে ইঙ্গিত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশের স্বনামধন্য একজন ব্যাংকের এমডি পদ নিয়ে কত বড় ষড়যন্ত্র করলেন। পদ্মা সেতুর কাজ পর্যন্ত বন্ধ করে দিলেন। মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে বিশ্বব্যাংক সে সময় বলছিলো এই করলে টাকা দেবে, ওই করলে টাকা দেবে।

কিন্তু আমি বলেছিলাম, মিথ্যা অভিযোগ নিয়ে আমরা কোনও টাকা নেবো না। তখন আমি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিলাম যে পদ্মা সেতু প্রকল্পে কোনও দুর্নীতি হয়নি। কানাডার আদালতে তা প্রমাণ হয়েছে।

 

Check Also

বিদেশে নয় দেশের মাটিতেই বিয়ের পরিকল্পনা রকুল-জ্যাকির

সংবাদবিডি ডেস্ক ঃ রকুল প্রীত সিং ও জ্যাকি ভাগনানির বিয়ে ২১ ফেব্রুয়ারি। বিয়ের প্রস্তুতি এখন …