ইউএস বাংলা ট্রাজেডি, গাফিলতি ছিলো কন্ট্রোল টাওয়ারের

নেপালের ত্রিভূবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে গত বছরের ১২ই মার্চ দুর্ঘটনায় বিধ্বস্ত হয় ইউএস বাংলার একটি উড়োজাহাজ। এ বছর ২৮ জানুয়ারী তদন্তের চূড়ান্ত প্রতিবেদন দেয় নেপাল কমিশন। পাইলটের মানসিক অস্থিরতা এবং তার অসতর্কতাকেই দুর্ঘটনার জন্য দায়ী করে কমিশন।

তদন্ত কমিটির বাংলাদেশ দলের প্রধান- ক্যাপ্টেন সালাউদ্দিন এম রহমতউল্লাহ বলেন, মানসিক চাপে পাইলটের কিছুটা অবসাদ ছিলো। কিন্তু উড়োজাহাজ অবতরণে নির্দেশনা দেয়ার দায়িত্ব ছিলো ত্রিভূবন বিমানবন্দরের কন্ট্রোল টাওয়ারের, যেটা তারা করেনি। টাওয়ার থেকে নির্দেশনা দেন শিক্ষানবীশ কন্ট্রোলার।

তিনি বলেন, রানওয়ের জিরো টু’তে অবস্থান করে টু জিরো’তে অবতরণ করতে চাওয়াটা অস্বাভাবিক।

পরিস্থিতি মোকাবেলায় পাইলটকে নির্দেশনা দেয়া বা ফায়ার সার্ভিস ও অ্যাম্বুলেন্সের প্রস্তুতির বদলে কন্ট্রোল টাওয়ারের টেবিলের নিচে আশ্রয় নেন কন্ট্রোল টাওয়ারের দায়িত্বশীলরা। দুর্ঘটনার পর উদ্ধারকাজও বিলম্বিত ছিলো।

তিনি জানান, নেপালের এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল টাওয়ারের এসব গাফিলতি ও অপেশাদার আচরণের বিষয়টি প্রতিবেদনে পুরোপুরি এড়িয়ে যাওয়া হয়েছে। এসব পর্যবেক্ষণ নেপালের কমিশনকে পাঠিয়েছে সিভিল এভিয়েশন। আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হবে আন্তর্জাতিক এভিয়েশন সংস্থা- আইকাওকে।

Check Also

সুপ্রভাত-জাবালে নূর বাস চলাচলে নিষেধাজ্ঞা

সুপ্রভাত পরিবহনের সাথে জাবালে নূর পরিবহনের সবগুলো বাস চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন …