নতুন বছরের শুরুতেই পদ্মাসেতুতে যুক্ত হচ্ছে নতুন স্প্যান।

পঞ্চম স্প্যান বসানোর পর কারিগরি জটিলতায় আর কোন স্প্যান লাগানো যায়নি। এখন সেতুর জাজিরা প্রান্তে ছয় নাম্বার স্প্যান বসানোর প্রস্তুতি চূড়ান্ত বলে জানান প্রকৌশলীরা। পরিকল্পনা অনুযায়ী এখন থেকে প্রতিমাসে একটি করে স্প্যান বসবে। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে সেতুর কাজ শেষ করার লক্ষ্য রয়েছে বলে জানান প্রকল্প পরিচালক।

বর্ষায় এই পদ্মার চারদিকে ছিলো থৈ থৈ পানি। উত্তাল সেই পদ্মার চেহারা আর নেই। এখন দেখা দিয়েছে নাব্যতা সঙ্কট। পদ্মা সেতুর ছয় নাম্বার স্প্যান বসাতে দশটি ড্রেজিং এ চলছে পলি সরানোর কাজ।

প্রকৌশলীরা বলছেন, পৃথিবীর অনেক নদীর স্রোত চলে সোজা পথে। কিন্তু পদ্মার স্রোত আঁকাবাঁকা। তাই পদ্মায় কাজ করতে হয় স্রোতের মর্জি মতো। ফলে পরিকল্পনা অনুযায়ী অনেক কাজই সময়মত করা যায়নি। তবে কেটে গেছে সব জটিলতা।

২০১৭ সালের ৩০ অক্টোবর শরিয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে ৩৭ ও ৩৮ নম্বর পিলারের ওপর বসানো হয়েছিল সেতুর প্রথম স্প্যান। এরপর দ্বিতীয়টি বসানো হয় ১৮ সালের ২৮ জানুয়ারি। এভাবে আরও তিনটি স্প্যান বসানো হলে পাঁচটি স্প্যান যুক্ত হয়ে দৃশ্যমান হয় সেতুর ৭৫০ মিটার। এ মাসেই ছয় নাম্বার স্প্যান বসবে বলে জানান প্রকল্প পরিচালক। তিনি জানান, এখন পর্যন্ত পুরো সেতুর কাজের ৬১ শতাংশ শেষ হয়েছে। মুল সেতুর কাজ হয়েছে ৭১ শতাংশ। নদী শাসনের কাজ কিছুটা পিছিয়ে, ৪৭ শতাংশ। আর দুদিকের এপ্রোচ সড়কের কাজ শতভাগ শেষ হয়েছে। দু’পাড়ের পুনর্বাসন প্রকল্পের কাজও প্রায় শেষ পর্যায়ে।

Check Also

সব তাল ঠিক রাখতে গিয়ে সমালোচনা কুড়াচ্ছেন কলকাতার নায়িকা নুসরাত জাহান

সম্প্রতি শেষ হওয়া ভারতের লোকসভা নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর সিদ্ধান্ত নেন বিয়ের। পাত্র প্রেমিকা লিখিল …