শিরোনাম

এখনো সেলিব্রেশন শেষ হয়নি তাদের..

১৯৪৭ সাল থেকে অস্ট্রেলিয়ায় টেস্ট সিরিজ খেলে আসছে ভারত। কিন্তু কোনো সিরিজ জিততে পারেনি। অবশেষে ৭১ বছরের টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো সিরিজ জিতেছে বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন উপমহাদেশের দেশটি। নিঃসন্দেহে অনন্য এক অর্জন।

জয়ের সাফল্য। প্রিয়জন সেই জয়ের কাণ্ডারি বললে ভুল হবে না। কোহলি বরাবরই বলেন, আনুশকা তার জীবনের অন্যতম অনুপ্রেরণা। সেই কোহলি যখন প্রথম অধিনায়ক হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে যখন বোর্ডার-গাভাস্কার ট্রফি হাতে তুলছেন বিরাট কোহলি, তখন মাঠে দাঁড়িয়েই সেই মাহেন্দ্রক্ষণ চাক্ষুষ করেন আনুশকা।

পরবর্তী সময়ে স্ত্রী আনুশকার কাঁধে হাত রেখেই এদিন সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ‘ভিক্টোরি ওয়াক’ দেন কোহলি। আনুশকার মুখে ছিল গর্বের হাসি। আর থাকবেই বা না কেন? প্রিয়জনের নেতৃত্বের এই ঐতিহাসিক মুহূর্তের সাক্ষী যে তিনি। শুধু তা-ই নয়, স্বামী কোহলির সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরণার নামই যে তিনি!
সিরিজ জয়ের পর ট্রফি হাতে কোহলিদের বাঁধভাঙ্গা উল্লাস। ছবি: সংগৃহীত

স্বামীর কীর্তিতে তাই উদযাপনটাও হলো বাঁধভাঙ্গা। মাঠে ভিক্টোরি ওয়াকের পাশাপাশি চললো তুমুল নাচানাচি। টিম হোটেলে ফিরেও থামেনি তা। কেক কেটে স্বামীর সাফল্যের উদযাপন করলেন কোহলিপত্নী। ঐতিহাসিক টেস্ট জয়ের দিনেই মাঠ থেকে টিম হোটেল সর্বত্রই ভারতীয় ক্রিকেটারদের নানা ছবি ছড়িয়ে পড়ে নেট দুনিয়ায়।

সব ছবিকে ছাপিয়ে গেছে অবশ্য বিরুশকার উদযাপনের এই ছবিটি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে পোস্ট হওয়া ওই ছবিতে দেখা যাচ্ছে কেক কেটে স্ত্রীকে খাইয়ে দিচ্ছেন কোহলি। ভারতীয় অধিনায়কের আঙুলে কি আদুরে কামড়টাই না দিয়েছেন আনুশকা! কোহলির মুখের ভঙ্গি অন্তত সে কথাই বলছে!

Check Also

গাজীপুরে ১১ ঝুট গুদামে আগুন

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের দেওয়ালিয়াবাড়ি এলাকায় ১১টি ঝুট গুদামে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার (২০ ফেব্রুয়ারি) …