বন্ধ হয়ে গেল ইয়াহু মেসেঞ্জার

অনলাইন ডেস্ক: আনুষ্ঠানিকভাবে আজ থেকে বন্ধ হয়ে গেল ইয়াহু মেসেঞ্জার। তাই আবেগপ্রবণ হয়ে অনেকেই ইয়াহু মেসেঞ্জার ব্যবহারের স্মৃতি তুলে ধরছেন বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোয়।

১৯৯৮ সালে যাত্রা শুরু করে ইয়াহুর মেসেঞ্জার সেবা। ওই সময়কার কিশোর-তরুণদের কাছে দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে উঠে। মেসেঞ্জারটির গ্রুপচ্যাটের বিষয়টি দারুণ ভাবে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

সর্বশেষ এটি যুক্তরাষ্ট্রের টেলিকম সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ভেরিজনের ওথ কোম্পানির অধীনে ছিল। তারা বলছে, এখন যাঁদের ইয়াহুতে চ্যাটের বিভিন্ন হিস্টরি রয়েছে, তা আগামী ছয় মাস পর্যন্ত ডাউনলোড করার সুযোগ থাকবে। এরপর ইয়াহু মেসেঞ্জার আর ওয়েবে থাকবে না।

ইয়াহু মেসেঞ্জারের ব্লগ পোস্টে বলা হয়, “দারুণ এক যাত্রা ছিল ইয়াহু মেসেঞ্জারের। ২০ বছরের যাত্রায় এ সেবা কোটি কোটি মানুষ উপভোগ করেছেন। লাখো মানুষের জীবন বদলে দিয়েছিল এটি। লাখো মানুষ চিঠি পাঠিয়েছেন, ছবি পাঠিয়েছেন।”

তবে বর্তমান সময়ের হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, স্ন্যাপচ্যাটের সঙ্গে জনপ্রিয়তায় পেরে ওঠেনি ইয়াহু মেসেঞ্জার।

Check Also

নতুন বছরে স্বস্তি ফিরেছে পুঁজিবাজারে

টানা দরপতনের পর নতুন বছরে স্বস্তি ফিরে এসেছে দেশের পুঁজিবাজারে। ২০১৮ সাল জুড়েই দেশের প্রধান …